আমার ভেতর থেকে উঠে আসছে একটি নিঃশ্বাস।এখন ভীষণ কোন সত্য নেই। আশেপাশে ধ্বংসস্তূপ আছে।এখন সময় কোন বৃত্ত নয়, একটি স্থির বিন্দু পড়ে আছে।যৌবন পাশের দিকে সরে গেছে। নীরব, প্রত্যয়ী।তরুণ তরুণী ওরা হাসতে হাসতেনিজস্ব জীবন বাঁচতে চলে গেছে ডাইনে আর বাঁয়ে।ওদের আমাকে আর প্রয়োজন নেই বলে মনে হয়, তবে?এই সময়ের নিচে এত ক্ষুব্ধ অন্তরাত্মা বয়েএই সময়ের নিচে এত ক্লান্ত চেতনা আমারকোনকিছু ভাল না লাগার আজ, কোন চাওয়া নেই আর, পাওয়াতিক্ত তী‌ক্ষ্ণ কোলাহল মনে হয় যদি সবকিছু,তবু এরই মধ্যে মৃত্যু মুখে নিয়েহেঁটে যাই আমরা আর আমাদের চোখপড়ে নেয় এই এক কার্যক্রম এই এক ঢেউতোলা আঁকিবুঁকি, হ্রদেযেরকম ঢিল ছুঁড়লে জলের ভেতরে জাগে অদ্ভুত কাঁপনসেইমত… দৃষ্টি মেলে দেখে যাই অদ্ভুত আঁধারে কিছু আশ্চর্য ছকবাজি, আরদিকে দিকে বন ধ্বংস হয়ে যায়, ধ্বংস হয়ে যায় অতিকায় সব প্রাচীন বিন্যাসগাছ পুঁতি একটি দুটি শুধুপ্রায়শ এ মনটিকে নতুন আশ্বাস দেয় সামান্য চারার মত সবুজ, উদ্ভিদই!

Read the Digital Edition of Udbodhan online!

Subscribe Now to continue reading

₹80/year

Start Digital Subscription

Already Subscribed? Sign in